NEET এবং NET দুর্নীতি কে সামনে রেখে দেশ জুড়ে ছাত্র ধর্মঘটের ডাক দিল SFI

by Chhanda Basak
SFI calls for nationwide student strike against NEET and NET corruption

NEET পরীক্ষার প্রশ্নপত্র নিয়ে অনেক অভিযোগ রয়েছে। সারা দেশ রীতিমত তোলপাড়। সংসদেও তার ঝড় উঠেছে। বিভিন্ন বিরোধী রাজনৈতিক দল তাদের আন্দোলন শুরু করেছে। সেই পরিস্থিতিতে NEET ও NET দুর্নীতির প্রতিবাদে আগামী ৪ জুলাই সারা দেশে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে বামপন্থী ছাত্র সংগঠন SFI।

এখন এই ছাত্র ধর্মঘটের কী প্রভাব পড়বে সেটাই দেখার। এদিন অনেক কর্মসূচির আয়োজন করবে এসএফআই। ছাত্র ধর্মঘটের দিন ছাত্ররা ক্লাস বর্জন করবে। তারা প্রতিবাদ মিছিলে যোগ দেবেন।

মোট ৭ দফা দাবিতে এই কর্মসূচি নিয়েছে এসএফআই। তাদের প্রধান দাবি এনটিএ ব্যবস্থা বাতিল করা। কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীকে ইস্তফা দিতে হবে। যারা সম্প্রতি NEET এবং NET পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে তাদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। পিএইচডির জন্য নেট পরীক্ষায় নির্দিষ্ট নম্বর স্কোর করার প্রয়োজনীয়তা বাতিল করতে হবে। কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রনেতাদের গ্রেফতার করা যাবে না। স্কুল বন্ধ করা যাবে না। পরীক্ষা ব্যবস্থাকে কেন্দ্রীকরন করার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারেরও দাবি জানিয়েছে এসএফআই।

সংগঠনের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক ময়ূখ বিশ্বাসের বক্তব্য, “নরেন্দ্র মোদী তৃতীয় বার ক্ষমতায় আসার প্রথম ১০ দিনের মধ্যে নিট থেকে নেট বাতিল হয়েছে। অসংখ্য ছাত্রের ভবিষ্যৎ নিয়ে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে। গত কয়েক বছরে দেশে কয়েক লক্ষ স্কুল বন্ধ করা হয়েছে। এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে প্রতিহিংসামূলক পদক্ষেপ হিসেবে পড়ুয়াদের ‘সাসপেন্ড’ করা হচ্ছে। এই সব কিছুর প্রতিবাদেই আমারা ধর্মঘটের ডাক দিয়েছি।” প্রসঙ্গত, সম্প্রতি এসএফআই-সহ চারটি বাম ছাত্র সংগঠন একই বিষয়কে সামনে রেখে কলকাতায় শ্যামবাজার থেকে কলেজ স্ট্রিট পর্যন্ত মিছিল করেছিল।

আরও পড়ুন: লোকসভা ভোটে তামিলনাড়ু-রাজস্থান আসার আলো দেখালেও কেরল ও বাংলা নিয়ে কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে উদ্বেগ প্রকাশ ইয়েচুরির 

এদিকে বাংলার মতো সারা দেশে বামেদের শক্তি কমে গেছে। এবার লোকসভা নির্বাচনে বামেদের শক্তি ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়েছে। তবে সেই পরিস্থিতিতে ছাত্র ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে বামপন্থী ছাত্র সংগঠন। কিন্তু এই ছাত্র ধর্মঘট শেষ পর্যন্ত কতটা সফল হবে সেটাই প্রশ্ন। এদিকে, NET পরীক্ষায় নানা অনিয়মের বিরুদ্ধে সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি লিখেছেন, “ঘুষসহ পেপার ফাঁসের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ তদন্ত হওয়া উচিত। এ অবস্থার কারণে মেডিকেল কোর্সে ভর্তির স্বপ্ন দেখছেন এমন লাখ লাখ শিক্ষার্থী ধাক্কা খেয়েছে।”

মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেছেন, এটা শুধু চিকিৎসা শিক্ষার মান নিয়েই প্রশ্ন উঠছে না, সারা দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। সেই প্রসঙ্গে, আমরা বলছি যে ২০১৭ এর আগে, রাজ্য সরকার তাদের মতো পরীক্ষা পরিচালনা করত এবং কেন্দ্রীয় সরকারও তাদের মতো পরীক্ষা পরিচালনা করত। সে ব্যবস্থায় কোনো সমস্যা হয়নি। তিনি আঞ্চলিক পাঠ্যক্রম এবং শিক্ষার মান অনুযায়ী কাজ করেছেন। রাজ্য সরকার একজন মেডিকেল ছাত্রের শিক্ষা এবং ইন্টার্নশিপের জন্য প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা খরচ করে। এমতাবস্থায় রাজ্যকেও জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষা নেওয়ার অধিকার দেওয়া উচিত।

NEWS24-BENGALI.COM

NEWS24-BENGALI.COM brings to provide the latest quality Bengali News(বাংলা খবর, Bangla News) on Crime, Politics, Sports, Business, Health, Tech, and more on Digital Platform.

Edtior's Picks

Latest Articles

Copyright © 2024 NEWS24-BENGALI.COM | All Rights Reserved.