দেউচা-পাঁচামিতে মাও পোস্টার, আদিবাসীদের আন্দোলনের সমর্থনে হরিণসিংহায় মাও পোস্টার

by Chhanda Basak

ওয়েব ডেস্ক: দেওচা-পাঁচামি প্রস্তাবিত কয়লাখনি গড়া নিয়ে আদিবাসীদের আন্দোলনের পাশে দাঁড়াল মাওবাদীরা। হরিণসিংহা গ্রামের দেওয়ালে পোষ্টার সাঁটিয়ে আদিবাসীদের আন্দোলনকে সমর্থন কথা জানিয়েছে মাওবাদী সংগঠন। এই পোস্টারকে কেন্দ্র করেই এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Maoist posters being noticed in deucha panchami area birbhum

প্রশাসনের দাবি, মাওবাদীরা নয়, পোস্টার দিয়েছেন স্থানীয়রা। স্থানীয় আন্দোলনকারীদের আবার দাবি, তাঁরা ওই পোস্টার সমর্থন করেন না। শাসকই বরং তাঁদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে বদনাম করে ফায়দা লুটতে চাইছে। শাসকও বলছে, মাওবাদী বলে কিছু নেই। কেউ ঘোলা জলে মাছ ধরছে। ফলে দেউচা পাঁচামির আন্দোলন সমর্থন করে পড়া মাও নামাঙ্কিত পোস্টার এখন এক বড়সড় রহস্য। শনিবার হরিণসিংহা গ্রামে আন্দোলনকে সমর্থন করে পোস্টার পড়েছে বলে জানা গিয়েছে।

দেউচা-পাঁচামিতে প্রস্তাবিত কয়লাখনি গড়া নিয়ে আদিবাসীরা ক্রমেই তাঁদের আন্দোলন জোরাল করছে। এরই মধ্যে আন্দোলনের পাশে দাঁড়িয়েছে মাওবাদী সংগঠন CPI মাওবাদী। হরিণসিংহা গ্রামের দেওয়ালে পোস্টার সাঁটিয়ে আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়েছে। সেই পোস্টারকে ঘিরে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। শুধু তাই নয়, গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

বীরভূমের মহম্মদ-বাজার থানা এলাকায় দেওচা-পাঁচামি প্রস্তাবিত কয়লাখনি চালুর বিষয়ে সরকারের প্যাকেজ ঘোষণার পরেই শুরু হয়েছে আদিবাসী আন্দোলন। সেই আন্দোলনের পাশে দাঁড়িয়েছে সেভ ডেমোক্রেসি সহ একাধিক রাজনৈতিক সংগঠন। এর পাল্টা দিন দু’য়েক আগে হাতে ব্যানার ছাড়াই গ্রামে মিছিল করেছিল তৃণমূল। মহিলারা হাতে ঝাঁটা, লাঠিসোঁটা নিয়ে সেই মিছিল রুখে দিয়েছিল। কয়েকজন তৃণমূল কর্মী সমর্থককে হেনস্থাও করা হয়েছিল বলে অভিযোগ। তৃণমূলের মিছিলে হামলা চালানোর অপরাধে মহম্মদ-বাজার থানার পুলিশ রাতে গ্রামে গিয়ে মহিলাদের নির্বিচারে হামলা চালিয়েছে বলেও অভিযোগ। পুলিশে মারে ২০ জনেরও বেশি মহিলা আহত হন বলে দাবি আন্দোলনকারী গ্রামবাসীদের।। তাদের মল্লারপুর প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসা করানো হয়েছে।

সোমবারই পুরভোটের বিজপ্তি জারির সম্ভাবনা,নজরে কমিশনের সর্বদল বৈঠক

এরপরেই শনিবার মাওবাদী পোষ্টার মেলে হরিণসিংহা গ্রামে। সাদা কাগজে লালকালিতে হিন্দিতে লেখা ‘হাম লোগ আপ কে সাথ হ্যায়।’ পোস্টারে বক্তব্যের নীচে লেখা ‘সিপিআই (মাওবাদী)’। এপ্রসঙ্গে জেলা পুলিশ সুপার নগেন্দ্রনাথ ত্রিপাঠী বলেছেন, ‘আমরা তদন্ত করছি। তবে ওই পোষ্টার সাঁটানোর পিছনে স্থানীয়দের হাত রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে আমরা ঝাড়খণ্ডের পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলেছি। খুব তাড়াতাড়ি আমরা পোস্টারের রহস্য উদ্ঘাটন করব।’

“পাশে আছি” দেউচা পাচামি আন্দোলনকারীদের বার্তা দিলেন সূর্যকান্ত মিশ্র

আদিবাসী নেতা সুনীল মুর্মুর দাবি, ‘আমাদের জনজাতি আদিবাসী ভূমিরক্ষা কমিটি ওই পোস্টারকে সমর্থন করে না। কারা ওই পোষ্টার মেরেছে আমরা বলতে পারব না। আমাদের মনে হচ্ছে এই সমস্ত পোষ্টার মেরে শাসক দল রাজনৈতিক চক্রান্ত করে আমাদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে রুখে দিতে চাইছে। আমরা কোন প্ররোচনায় পা দেব না। আমরা কয়লাখনি চাই না। মাতৃভূমি ছাড়ব না। যতই মামলা দেওয়া হোক কিংবা পুলিশ দিয়ে মারধর করা হোক, আমাদের আন্দোলন জারি থাকবে।’

NEWS24-BENGALI.COM

NEWS24-BENGALI.COM brings to provide the latest quality Bengali News(বাংলা খবর, Bangla News) on Crime, Politics, Sports, Business, Health, Tech, and more on Digital Platform.

Edtior's Picks

Latest Articles

Copyright © 2024 NEWS24-BENGALI.COM | All Rights Reserved.