‘শহিদ দিবস’-এর পালটা ‘শহিদ তর্পণ’-এর ঘোষণা বিজেপির

by Chhanda Basak

ওয়েব ডেস্ক: তৃণমূলের ২১ জুলাইয়ের পালটা কর্মসূচি ঘোষণা করল বিজেপি। বুধবার নয়া দিল্লি, কলকাতা ও জেলায় জেলায় একযোগে পালিত হবে বিজেপির ‘শহিদ শ্রদ্ধাঞ্জলি’ কর্মসূচি। যোগ দেবেন দলের রাজ্য সভাপতি, বিরোধী দলনেতা থেকে বুথ কর্মীরা। মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠকে এমনই জানিয়েছেন দলের মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য।

‘শহিদ দিবস’-এর পালটা 'শহিদ তর্পণ'-এর ঘোষণা বিজেপির

সোমবারই এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজেপি। যেভাবে তৃণমূল কংগ্রেস এবার বাংলার গণ্ডি ছাড়িয়ে ২১ জুলাইয়ের অনুষ্ঠানকে ভিন রাজ্যে পৌঁছে দিয়েছে, বিজেপিও সেই একই পথে হেঁটে তাঁদের মৃত কর্মীদের শ্রদ্ধা অর্পণ করবেন দেশ জুড়ে। জানা গিয়েছে দিলীপ ঘোষ রাজঘাটে ‘শহিদদের’ প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করবেন। বিজেপির দাবি, তৃণমূল জমানায় এখনও পর্যন্ত ১৮০ জনের বেশি বিজেপি কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেই এই দিবস পালনের পথে হাঁটছে বিজেপি।

জানা গিয়েছে, বুধবার সকাল সাড়ে ১১টা থেকে নয়াদিল্লীর রাজঘাটে ধরনায় বসবেন বিজেপি সাংসদরা। নেতৃত্ব দেবেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এ রাজ্যেও একই কর্মসূচি পালন করবে গেরুয়া শিবির। কলকাতায় রাজ্য বিজেপি নেতারা শহিদ শ্রদ্ধাঞ্জলি দিবস পালন করবেন। সম্ভবত হেস্টিংসে হবে এই কর্মসূচি। নেতৃত্বে থাকবেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। ২১ জুলাই মৃত ১৩ জনের স্মৃতিস্তম্ভ তৈরি করে যেমন বিক্ষোভ দেখায় তৃণমূল। অনেকটা একই ধাঁচে হবে বিজেপির কর্মসূচি। তাঁদের অভিযোগ, বিধানসভা ভোটের ফলাফল ঘোষণার পর থেকে রাজ্যে এখনও পর্যন্ত ৩৮ জন বিজেপি কর্মী খুন হয়েছেন। সেই সমস্ত কর্মীদের ছবি সামনে রেখে বিক্ষোভ দেখাবে পদ্ম শিবির।

এবার নদীয়া থেকে গ্রেপ্তার আর এক ভুয়ো IAS অফিসার

এর আগে তৃণমূলের তরফে জানানো হয়েছিল যে গুজরাতের ৩২টি জেলায় বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শহীদ দিবসের ভাষণ প্রচার করা হবে। পাশাপাশি আরও বেশ কয়েকটি রাজ্যে সেই ভাষণ প্রচারিত হবে। একুশের মঞ্চকে ব্যবহার করে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পৌঁছাতে চেষ্টা করছে রাজ্যের শাসক দল। ইতিমধ্যেই শাসকদলের তরফ থেকে দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ, অসম, ত্রিপুরা সহ একাধিক রাজ্যে একুশের ভার্চুয়াল সভা পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সেই উদ্যোগের পালটা এবার ময়দানে নামল গেরুয়া শিবির।

Pegasus কাণ্ডে এবার দিল্লি-কলকাতায় তৃণমূলের ধরনা

প্রসঙ্গত, ১৯৯৩ সালের‌ ২১ জুলাই যুব কংগ্রেসের একটি কর্মসূচিতে গুলিতে চালানো হয়েছিল। যাতে মৃত্যু হয়েছিল ১৩ জনের। সেই কর্মসূচির নেতৃত্বে ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরপর থেকে তৃণমূলের জন্ম থেকে এই দিনটিকে ‘শহিদ দিবস’ হিসাবে পালন করা হয়ে আসছে। এই আবহে বুধবার বিজেপিও ময়দানে নেমেছে। দিল্লি থেকে ভাষণ দেবেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী-সহ রাজ্যের অন্য বিজেপি নেতারাও ভাষণ দেবেন।

NEWS24-BENGALI.COM

NEWS24-BENGALI.COM brings to provide the latest quality Bengali News(বাংলা খবর, Bangla News) on Crime, Politics, Sports, Business, Health, Tech, and more on Digital Platform.

Edtior's Picks

Latest Articles

Copyright © 2024 NEWS24-BENGALI.COM | All Rights Reserved.