দুয়ারে রেশন প্রকল্পকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে ডিলাররা

by Chhanda Basak

ওয়েব ডেস্ক: বিধানসভা ভোটের আগে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই মতই সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে চলেছে ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্প। এবার ওই প্রকল্পকে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে রেশন ডিলারদের একাংশ। তাদের দাবি, এই প্রকল্প কেন্দ্রীয় আইনের পরিপন্থী। এখনও পর্যন্ত এই মর্মে বিজ্ঞপ্তিও জারি হয়নি।

Ration dealers filed pil against duare ration in calcutta high court

রাজ্য জানিয়েছে, ‘বাড়ি গিয়ে রেশন দিতে খরচ বহন করতে হবে ডিলারদের। পাল্টা রেশন ডিলারদের দাবি, ‘এই বিপুল খরচ তাঁরা বহন করতে পারবেন না। দিল্লিতেও এই ধরনের প্রকল্প আনার চেষ্টা হয়েছিল। কিন্তু কেন্দ্র অনুমোদন দেয়নি।’

গ্রাহকদের দরজায় রেশন পৌঁছে দেওয়ার প্রকল্প পরীক্ষামূলক ভাবে শুরু হওয়ার কথা ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে। ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্পে যা শর্ত দেওয়া হয়েছে তাতেই আপত্তি ডিলার সংগঠনের। তাঁদের দাবি, কুইন্টাল পিছু ২০০ টাকা ভর্তুকির পাশাপাশি, ৪০ টাকা পার কুইন্টাল প্যাকেজিং চার্জ দেওয়া হোক। ১৫ দিন দোকান থেকে নেওয়া, পরের ১৫ দিন বাড়িতে রেশন পৌঁছনোর ব্যবস্থা চালু হোক। বাড়ি গিয়ে রেশন দেওয়ার জন্য ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস দিক সরকার। গাড়ির ব্যবস্থাও সরকারই করুক।

ডুয়ার্সে উদ্ধার ৩ জার সাপের বিষ! বাংলা থেকে গন্তব্য চিন…

বর্তমানে রেশন সামগ্রীর কুইন্টাল প্রতি ডিলারদের ৭৫ টাকা কমিশন দেয় রাজ্য সরকার। তবে ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্পে তা বাড়িয়ে ১৫০ টাকা করার ঘোষণা করা হয়েছে। যদিও ডিলার সংগঠনের একাংশের দাবি, কুইন্টাল প্রতি ২০০ টাকা কমিশন দিতে হবে তাঁদের। রেশন ডিলার সংগঠনদের অন্য একটি অংশ আবার জানিয়েছে, রাজ্য সরকারের শর্ত মেনেই বাড়ি বাড়ি রেশন পৌঁছে দিতে প্রস্তুত।

রাজ্যে মোট রেশন ডিলার রয়েছেন ২০ হাজার ২৮৬ জন। তার ১৫ শতাংশ, অর্থাৎ ৩ হাজার ৪২ জনকে নিয়ে ‘দুয়ারে রেশন’এর পাইলট প্রজেক্ট শুরু করতে চাইছে রাজ্য সরকার। এখন ১৫ সেপ্টেম্বর সরকারি প্রকল্পে কতজন অংশগ্রহণ করেন, সেটাই দেখার।

কেন স্রেফ ভবানীপুরেই উপনির্বাচন? জনস্বার্থ মামলা কলকাতা হাইকোর্টে

বিচারপতি অমৃতা সিনহার এজলাসে ডিলাররা জানিয়েছেন, বাড়ি বাড়ি গিয়ে রেশন (Raion) দেওয়া আইন বিরুদ্ধ। সেই পরিকাঠামো তাঁদের নেই। পাশাপাশি লোকবল তাদের নেই বলে জানিয়েছেন মামলাকারীরা। দিল্লিতেও এই ধরনের প্রকল্প আনার চেষ্টা হয়েছিল, কেন্দ্র অনুমোদন দেয়নি বলেও যুক্তি দিয়েছেন ডিলাররা। রাজ্যের পাল্টা যুক্তি, গ্রাহকদের সুবিধার্থে তারা আইন সংস্কার করতে পারে। এতে ডিলারের অধিকার ক্ষুণ্ণ হয় না।

NEWS24-BENGALI.COM

NEWS24-BENGALI.COM brings to provide the latest quality Bengali News(বাংলা খবর, Bangla News) on Crime, Politics, Sports, Business, Health, Tech, and more on Digital Platform.

Edtior's Picks

Latest Articles

Copyright © 2024 NEWS24-BENGALI.COM | All Rights Reserved.